প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়:আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছাড়ল না রাজ্য সরকার

মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছাড়ল না রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় :- 

Alapan Bandyopadhyay
প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


নিউজ-বাংলা ডেস্ক :-(News18 Bnagla) মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Alapan Bandyopadhyay) বদলির জল্পনায় ইতি টানলো রাজ্য। এই মুহূর্তে তাঁকে রাজ্যের মুখ্যসচিবের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে পারছে না রাজ্য, তা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন মুখ্যমন্ত্রী। আর এই চিঠি নিয়েই শুরু হলো জল্পনার নতুন মোড় ।সূত্রের খবর, চিঠিতে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের একাধিক ত্রুটি, ফাঁকফোকরের কথা উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কেন এই মুহূর্তে রাজ্য মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘রিলিজ অর্ডার’ দিতে পারছে না, তা বিস্তারিত জানিয়েছেন। পাশাপাশি, কেন্দ্রের ওই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহারের জন্য লিখিত আবেদন জানিয়েছেন মমতা। দাবি, অনুরোধ, সমালোচনার মিশেলে নরমে-গরমে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (CM Mamata Banerjee) তরফ থেকে ৫ পাতার একটি চিঠি পৌঁছল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) কাছে।

আজ ৩১ মে অর্থাৎ সোমবার সকাল ১০টার মধ্যে  সূত্র অনুযায়ী রাজ্যের মুখ্যসচিবের আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এর দিল্লিতে গিয়ে নর্থ ব্লকে কর্মীবর্গ বিভাগের কাজে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। গত শুক্রবার আচমকা কেন্দ্রের তরফ থেকে চিঠি পাঠিয়ে এ কথা জানানো হয় রাজ্যকে। তারপর থেকেই তাঁর এই বদলি নিয়ে নতুন করে এক টানাপোড়েন শুরু হয়। রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা না করে, মতামত না নিয়ে একতরফাভাবে কেন্দ্রের এই চিঠি ‘রাজনৈতিক অভিসন্ধিমূলক’ বলে অভিযোগ ওঠে বিভিন্ন মহলে। যা রাজনৈতিক মহলে একটি বিকেল ঘটনার সৃষ্টি করে। জল্পনা চলছিলই, মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে এখনই ছাড়বে না রাজ্য। মুখ্যমন্ত্রী তার চিঠিতে এ কথা উল্লেখ করেন যে,করোনা, যশ পরিস্থিতি মোকাবিলায় তিনি এত গুরুত্বপূর্ণ বলে তাঁর কার্যকালের মেয়াদ আরো তিন মাসের জন্য বাড়ানো হয়েছে কেন্দ্রের অনুমতি  সাপেক্ষে।রাজ্যের এই রকম কঠিন পরিস্থিতিতে কিছুতেই তাকে ছাড়া সম্ভব হচ্ছে না এমনটাই জানান তিনি। তা সত্ত্বেও সংশয় ছিল।কেন এত সংশয় এই নিয়েও বিভিন্ন প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক মহলে।

 সোমবার আলাপন নিজে কী করবেন, সেদিকেই চোখ ছিল গোটা রাজ্যের রাজনৈতিক মহল। 

তাছাড়া তাঁর ব্যক্তিগত জীবনের অস্থির পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত জানানো হয় কেন্দ্র সরকার কে । অর্থাৎ জানা যায় তিনি সদ্য তার ভাইকে হারান। এবং এটি একটি খুবই দুঃখজনক ভোট তো তার জন্য। এই সকল দিক মাথায় রেখে , প্রধানমন্ত্রীকে লেখা ওই  চিঠি টির মাধ্যমে সকল বিষয় জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় । 

এই অবস্থায় আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে এখনই ছাড়া যাচ্ছে না। পাশাপাশি, কেন রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা না করে আমলার বদলি , কি করে একতরফা সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র, সেই প্রশ্নও তিনি তুলেছেন চিঠিতে। 

Mamata Banerjee
CM Mamata Banerjee


তাছাড়া যে‘এই নির্দেশিকা ১৯৫৪ সালের ইন্ডিয়ান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস’ (ক্যাডার) নিয়মের পরিপন্থী।  এই সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিকও বটে। আমি আশা করছি আপনি যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর কোনও ক্ষতি চাইবেন না। আমি এটাও আশা করছি, বিভিন্ন রাজ্যে যে সব আমলারা কাজ করেন তাঁদের মনোবল তলানিতে চলে যায় এমন কোনও সিদ্ধান্ত আপনি নেবেন না। আমি বুঝতে পারছি না, কিছু দিন আগে মুখ্যসচিবের মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত কেন্দ্র নিয়েছিল এবং সেই সিদ্ধান্তের কথা রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা করেই হয়েছিল। তার পর কী এমন হল যাতে সেই সিদ্ধান্ত বদলে গেল। যে একতরফা নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে তাতে আলাপনকে কেন বদলি করা হল তার কোনও কারণ ব্যাখ্যা করা হয়নি। এমনই সকল মন্তব্য সাফ সাফ জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্র সরকার কে।

সূত্রের খবর, এদিন নবান্নে ‘যশ’ মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ‘দুয়ারে ত্রাণ’ প্রকল্প নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী আলোচনায় বসবেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্য়ায় এমনই খবর জানা যায়। স্রেফ এক চিঠিতে তাঁকে নিয়ে তৈরি হওয়া টানাপোড়েনের যেভাবেই ইতি ঘটিয়ে ফেললেন মমতা, তার সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশংসা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলের একাংশে।

Tag #news18bangla #news 18 bangla live #news18 bangla live #pradesh18 bangla

Leave a Comment